fbpx

|

ঈশ্বরগঞ্জে চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসীর অভিযোগ সুদারু রঞ্জুর বিরুদ্ধে

প্রকাশিতঃ ১২:০৯ পূর্বাহ্ন | অগাস্ট ১৪, ২০২১

অভিযোগ

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে আলোচিত সুদারু রঞ্জুর বিরুদ্ধে দাদন ব্যবসা, চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগ উঠেছে। দাদন ব্যবসা, চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্যক্রম বন্ধ ও তার ক্যাডার বাহিনীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর ঈশ্বরগঞ্জ পৌর বাজার ব্যাবসায়ী সমিতি স্বারক লিপি প্রদান করেছে।

ঈশ্বরগঞ্জ পৌরবাজার ব্যবসায়ী সমিতির পক্ষ থেকে এ স্বারক লিপি প্রদান করা হয়।

১২ আগস্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দেয়া স্বারক লিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে পৌরসভার দত্তপাড়া গ্রামের তালে হোসেনের পুত্র রঞ্জু মিয়া দীর্ঘদিন ধরে সুদের ব্যবসা, চাঁদাবাজি, দোকানপাট, জায়গা জমি দখলসহ সন্ত্রাসী কর্যক্রম চালিয়ে আসছে।

রঞ্জু তার সুদের টাকা আদায় করতে ও জায়গা জমি দখল করতে একটি নিজস্ব ক্যাডার বাহিনী গড়ে তুলেছে। ২৭ জুলাই পৌর বাজারের বাবার দোয়া দোকান মালিক দেলোয়ার হোসেনকে জোরপূর্বক বের করে দোকানে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে।

ঈশ্বরগঞ্জ বাজারের অনেক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী রঞ্জুর কাছ থেকে দাদন নিয়ে সুদের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে অনেকেই শারীরিক ভাবে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন।

গত সপ্তাহে ২৫/৩০জন ব্যবসায়ী রঞ্জুর বিরুদ্ধে প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকা পাওনার অভিযোগ করে। এতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে তার ক্যাডার বাহিনি নিয়ে ৫ আগস্ট ঈশ্বরগঞ্জ বাজারে প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া প্রদর্শন করে।

এসময় ঈশ্বরগঞ্জ থানা পুলিশ দেশীয় অস্ত্র সহ ২ জনকে গ্রেফতার করে। তার এই উদ্যত্তপূর্ণ সন্ত্রাসী কার্যক্রমে বাজারের সাধারণ ব্যবসায়ী মহল আতঙ্কে দিনাতিপাত করছেন।

বৃহস্পতিবার অনলাইনে আয়োজিত উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহমুদ হাসান সুমন, পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস ছাত্তারসহ অন্যান্য বক্তাগণ রঞ্জুর কর্মকান্ডের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

এব্যপারে অভিযুক্ত রঞ্জু জানান, সুদ কি জিনিস আমি চিনিই না। আর সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি কিভাবে করে জানি না। আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ন মিথ্যা।

এব্যপারে ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল কাদের মিয়া বলেন, বাজার সমিতির লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাকির হোসেন বলেন, স্বারকলিপি পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। এবং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে আলোচনা পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দেখা হয়েছে: 171
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!