fbpx

|

একটি বাসযোগ্য জেলা পরিষদ গঠনের ভূমিকা: মামুনুর রশিদ

প্রকাশিতঃ ১:৫৪ অপরাহ্ন | সেপ্টেম্বর ০৫, ২০২২

স্টাফ রিপোর্টার: শিক্ষা জীবন থেকে আমরা সকল ভাইবোন দেশ ও সমাজের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। সৃষ্টিকর্তা আমাদেরকে অনেক দিয়েছে আমাদেরও চাওয়া-পাওয়া আর কিছুই নেই। তবুও জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত যেন মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পারি। সেজন্য আগামী আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোয়ন প্রত্যাশী মো. মামুনুর রশিদ। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য এবং সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ঐতিহ্যবাহী হাজী মোজাম্মেল হক সাহেব বাড়ির মৃত হাজী মোজাম্মেল হক এর মেঝো ছেলে।

জানা যায়, ছাত্র জীবন থেকেই আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত মামুনুর রশীদ। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএ সম্পন্ন করেন। তার বাবা মরহুম হাজী মোজাম্মেল হক ছিলেন চট্টগ্রামের সহকারী নিয়ন্ত্রক ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

বড় ভাই হারুনুর রশিদ চট্টগ্রাম আয়কর অঞ্চল-২ এর উপ-কর কমিশনার, ছোট ভাই সেনাবাহিনীর বিগ্রেডিয়ার মোঃ মাহবুবুর রশীদ, ছোট বোন আমেনা বেগম পুলিশের ডিআইজি পদে সুনামের সাথে কর্মরত আছেন। অন্য ছোট বোন প্রবাসে অবস্থানরত। মামুনুর রশীদ পেশায় একজন সফল ব্যবসায়ী। ব্যবসার পাশাপাশি সামাজিক বিভিন্ন কর্মকান্ডের সাথে জড়িত তিনি।

এরমধ্যে চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল এবং বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির আজীবন সদস্য, লক্ষ্মীপুর জেলা সমিতি’র সদস্য, কমলনগর ও রামগতি উপজেলা সমিতির উপদেষ্টা। নিজ এলাকার মানুষের জন্য কিছু করার প্রয়াস ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে তিনি লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী।

মামুনুর রশীদ বলেন, আমাদের পুরো পরিবার দেশের সেবায় নিয়োজিত। দেশের সেবায় আমি নিজেকে আরো সমৃদ্ধ করতে চাই। এজন্য আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা করছি। আশা করি দল আমাকে যোগ্য মূল্যায়ন করবে। আমার প্রধান লক্ষ্য থাকবে
জেলা পরিষদকে একটি বাসযোগ্য পরিষদ গঠন করার।

অবহেলিত গ্রামগুলোর যেসব রাস্তাঘাট এখনো জরাজীর্ণ, সেগুলোকে চলাচলের উপযোগী করে তোলার। তখুনি গ্রাম হবে শহর। যদি দল আমাকে নৌকা মনোনয়ন না দেয়। যাকে দিবে আমি তার সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবো।

প্রসঙ্গত : ষষ্ঠতম কমিশন সভা শেষে গত মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ নির্বাচনের তিন পার্বত্য জেলা বাদে ৬১টি জেলা পরিষদের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা দেন।
তফসিল অনুযায়ী-মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ১৫ সেপ্টেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাই ১৮ সেপ্টেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের বিরুদ্ধে আপিল দায়েরের সময় ১৯ থেকে ২১ সেপ্টেম্বর, আপিল নিষ্পত্তি ২২ থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ সেপ্টেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ২৬ সেপ্টেম্বর। ভোটগ্রহণ ১৭ অক্টোবর।

দেখা হয়েছে: 83
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!