fbpx

|

আবারো এমপি ফারুক চৌধুরীকে রাজাকার পুত্র বললেন আসাদ

প্রকাশিতঃ ৮:৪১ অপরাহ্ন | জানুয়ারী ২৫, ২০২৩

তানোর প্রতিনিধি: ফের শহীদ পরিবারের সন্তান এমপি ফারুক চৌধুরীকে রাজাকার পুত্র বললেন সাবেক জেলা আ”লীগের সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ।

বুধবার বিকেলের দিকে তানোর উপজেলা আ”লীগের সাবেক সভাপতি গোলাম রাব্বানী ও সাবেক সম্পাদক মামুনের নেতৃত্বে আগামী ২৯ জানুয়ারি রাজশাহীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জনসভা সফল করতে প্রচার মিছিল এবং থানা মোড়ে পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আসাদ বলেন মাঝে মাঝে ফেসবুকে দেখি গোলাম রাব্বানী নাকি ষড়যন্ত্র কারী, তার বাপ দাদারা তানোরে জয়বাংলা স্লোগান দিয়েছেন, আমি প্রধানমন্ত্রীকে বলতে চাই আপনার দয়ায় তিনবার এমপি হয়ে রাজাকার পুত্র ফারুক চৌধূরী জামাত বিএনপিকে প্রতিষ্ঠা করছে।

এদিকে ফেসবুকে আসাদের এমন বক্তব্য ছড়িয়ে পড়লে চরম ক্ষুব্ধ হয়ে পড়েন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা।
তৃনমুলের ভাষ্য, রাব্বানী মামুন দীর্ঘদিন পর প্রধানমন্ত্রীর জনসভা সফল করতে বুধবার প্রচার মিছিল ও পথসভা করেছে। তারা জনসভা সফলের নামে এমপিকে রাজাকার পুত্র বললেন আসাদ। যদি ফারুক চৌধুরী রাজাকারপুত্র হয়, তাহলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কেন তাকে চারবার এমপি টিকিট দিল। তাহলে কি প্রধানমন্ত্রী রাজাকারদের মদদ দিচ্ছেন। যদি ফারুক চৌধুরী রাজাকার পুত্র হয়, তাহলে জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এইচএম কামারুজ্জামানের বোনের সাথে কিভাবে এমপির পিতার বিয়ে হল । এমপি যদি রাজাকার পুত্র হয়, তাহলে তো লিটন মেয়রের পরিবারও এতালিকায় চলে আসে।

মঞ্চ পেলে মুখে যা আসবে সেটা বললেন আসাদ, তিনি যদি এতই ত্যাগী নিবেদিত প্রান হত, তাহলে তাকে কেন এমপি টিকিট দেয় না। আসলে তিনি তো একজন প্রসিদ্ধ চাঁদাবাজ। তিনি কোথায় থেকে কিভাবে সম্পদশালী হলেন সবার জানা। তাকে ও রাব্বানী মামুনকে তানোরের মাটি থেকে অবাঞ্চিত করা হোক। নচেৎ তীব্র আন্দোলন গড়প তুলে প্রতিহত করা হবে তাকে।

আসাদের বক্তব্যের বিষয়ে রাব্বানীকে ফোন দেওয়া হলে তিনি বলেন, এমপি রাজাকার পুত্র একথা আসাদ ভাই প্রায় সভাতে বলে। তার কাছে সব প্রমান আছে। যদি এমপির খারাম লাগে তার বিরুদ্ধে মামলা করবে। প্রধানমন্ত্রীর জনসভার প্রচারে তারই মনোনীত এমপিকে রাজাকার পুত্র বলা যায় কিনা বা এটা এমপিকে হেয় করা হল কিনা প্রশ্ন করা হলে উত্তরে বলেন মামলা করলে আসাদ ভাই জবাব দিবেন বলে এড়িয়ে যান তিনি।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ বলেন, দলীয় ফোরামে এবিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হবে।

আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য রাজশাহীর সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের মোবাইলে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও তিনি রিসিভ করেন নি। পরে হটসআপে ফোন দিয়ে এমপি ফারুক চৌধুরী কি রাজাকার পুত্র, তাহলে আপনার ফুফুর সাথে কিভাবে বিয়ে হল তার পিতার সাথে,তাহলে কি আপনার পিতা রাজাকারের সাথে বিয়ে দিয়েছিলেন, আপনার পরিবার কি বাদ পড়ে, কিংবা জনসভার প্রচারে এসে আসাদ এধরনের বক্তব্য দিতে পারেন কিনা জানতে চাইলে তিনি কথাগুলো শুনে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।পুনরায় ফোন দেওয়া হলে আর রিসিভ করেননি।

বক্তব্যের বিষয়ে আসাদের মোবাইলে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলে রিসিভ করেননি।

থানা মোড়ে পথসভা শেষ করে তানোর পৌরসভায় আসেন তারা। ফেসবুকে এমন বক্তব্য শোনার পর পৌরসভায় নেতাকর্মী রা যাওয়ার আগেই তারা পরিস্থিতি ভয়াবহ হবে জেনে সটকে পড়েন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক রাকিবুল সরকার পাপুলের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রাব্বানী, গোদাগাড়ী উপজেলার সাবেক সভাপতি বদিউজ্জামান রবু, দেওপাড়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আক্তারুজ্জামান, মুন্ডুমালা পৌরসভার মেয়র সাইদুর রহমান, তানোর পৌরসভার প্যানেল মেয়র আরব আলী, শরিফুল প্রমুখ।

দেখা হয়েছে: 22
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!