fbpx

|

সিরাজের কুদৃষ্টির কারণে ভেঙ্গেছে ফেরদৌসী সংসার

প্রকাশিতঃ ১১:০৬ অপরাহ্ন | এপ্রিল ০৭, ২০২১

Lakshmipur

স্টাফ রিপোর্টার: লক্ষ্মীপুরে মোঃ সিরাজুল ইসলাম (৫৫) এর কুদৃষ্টি কারণে এক বছর পূর্বে ফেরদৌসী বেগম নামে ৫ সন্তানের জননীর সুখের সংসার ভেঙে গেছে। মানুষের মুখে-মুখে এখনও সিরাজের কুদৃষ্টি বর্ণনা। তারি রেশ না কাটতে-কাটতে এবার খারাপ কাজের উদ্দেশ্য পাশের বাড়ীতে গেলে হাতে-নাতে আটক করা হয়।

বুধবার (০৭ এপ্রিল) বিকেলে সদর উপজেলার হাজীগঞ্জ বাজার ও ঝাউডগী গ্রামে সরেজমিনে গেলে এসব তথ্য জানান বিভিন্ন পেশাজীবি মানুষ। অভিযুক্ত সিরাজুল ইসলাম সদর উপজেলার কুশাখালী ইউনিয়নের ‘ঝাউডগী’ গ্রামের মৃত: অলি উল্ল্যার ছেলে।

ভূক্তভোগী ফৈরদোসী বেগম ওই গ্রামের আব্বাস উদ্দিন বাবলুর স্ত্রী ও পাঁচ সন্তানের জননী।

ভূক্তভোগীর পরিবার ও এলাকাবাসী জানায়, ২০২০ সালের জুন মাসে অভিযুক্ত সিরাজের কুদৃষ্টির কারণে ফৈরদোসীর সুখের সংসার ভেঁঙ্গে চুরমার হয়ে গেছে। এসব খবর জানার পর লোক লজ্জায় তার স্বামী আব্বাস উদ্দিন বাবলু এলাকা ছেয়ে চলে জান। এতে ফৈরদোসীর সংসারে দুঃখ ও অভাব-অনটন নেমে আছে। মানবেতর জীবন-যাপন করছে ফৈরদোসী। এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচার পাননি ভূক্তভোগী ফৈরদোসী।

এদিকে মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) রাতে অভিযুক্ত সিরাজ তার পাশবর্তী একটি বাড়ীতে খারাপ উদ্দেশ্য প্রবেশ করলে গ্রামবাসী হাতেনাতে সিরাজকে আটক করে। এনিয়ে সিরাজের ছেলেদের সাথে গ্রামবাসীর মধ্যে বাকবিতন্ডায় লিপ্ত হয়। একপর্যায়ে সিরাজের ছেলেরা তার বাবাকে ছিনিয়ে নিয়ে। পরে বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী বিক্ষোভ করে। খবর পেয়ে রাতে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে।

ভূক্তভোগী ফৈরদোসীর দেবর সালাউদ্দিন বলেন, তার ভাই’র সুখের সংসার ছিলো, সিরাজ তার ভাবিকে কিছু টাকা ধার দেয়। এ সুবাদে একসময় সিরাজ তার ভাবিকে কুপ্রস্তাব দেয়। এবিষয় গুলো গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে, তার ভাই বাবলু সাজানো সংসার ভেঙে দেয়।

পুরো বিষয় গুলো অস্বীকার করে অভিযুক্ত সিরাজুল ইসলাম মুঠোফোনে বলেন, একটি চক্র তার বিরুদ্ধে অযথা মিথ্যা অপবাদ চালিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও তার বাড়ীর আশ-পাশের কিছু মানুষের সাথে তার জমিসংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। সবাই একসাথ হয়ে তার বিরুদ্ধে এমন মিথ্যা অভিযোগ তুলছে বলে তার দাবি।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন বলেন, বিষয়টি নিয়ে বিক্ষুব্ধ জনতা রাতে বিক্ষোভ মিছিল করে। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের আইনি পরামর্শ নিতে বলা হয়েছে।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একে ফজলুল হক বলেন, বিষয়টি শুনে ঘটনাস্থল পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এ ঘটনায় লেখিত অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দেখা হয়েছে: 398
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
আলী আরিফ সরকার রিজু
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪