|

গংগাচড়ায় একইস্থানে ৮ দিন ধরে আগুন, এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি

প্রকাশিতঃ ৭:০৭ অপরাহ্ন | জানুয়ারী ১৪, ২০২০

গংগাচড়ায় একইস্থানে ৮ দিন ধরে আগুন, এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি

সবুজ মিয়া, গংগাচড়া, রংপুরঃ রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার ৪নং সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেংমারি কুটির বাজার, ডিপের পাড় নামক গ্রামে গত আট দিন যাবত পাশাপাশি দুই বাড়ির খড়ের ঢিপিতে পর্যায় কর্মে আগুন লাগার ঘটনা ঘটছে।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা,গত আট দিন পূর্বে মৃত খোকা মিয়ার পুত্র মোঃদুলাল মিয়ার খড়ের ঢিপিতে প্রথম অগ্নিকাণ্ডের সুত্রপাত ঘটে। এলাকাবাসী তাৎক্ষণিক গংগাচড়া ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

এদিকে পুনরায় দ্বিতীয় দিনে পাশের বাড়ির জাফর আলীর পুত্র অহেদ আলীর বাড়িতে একই ভাবে আগুনের সুত্রপাত ঘটলে তাৎক্ষণিক ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে এবং উভয় বাড়ির লোকজনকে শতর্কতামূলক পরামর্শ প্রদান করেন।

কিন্তু পরের দিন আবার দুলাল মিয়ার খড়ের ঢিপিতে আগুন লাগলে এলাকায় এক চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি তৈরী হয়। এভাবেই একাধারে ৮দিন যাবত ঐ দুই বাড়ির খড়ের ঢিপিতে আগুনের সুত্রপাত ঘটে আসছে।

এব্যাপারে বাড়ির মালিক অহেদ আলীর সাথে কথা বললে তিনি জানান গত রবিবার একই দিনে আমার বাড়িতে চারবার আগুন লাগে এবং ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা বারবার আগুন নিভাতে এসে একপ্রকার বিরক্ত হয়ে যায়। পর পর তিন দিন ধরে বাড়িতে আগুন লাগার কারণে সোমবার আমার বাড়িতে মসজিদের ইমাম ও এলাকাবাসীকে নিয়ে দোয়ার আয়োজন করি। এবং সবার জন্য খাবারের আয়োজন করি। কিন্তু খাওয়া দাওয়ার একপর্যায়ে হঠাৎ ঘড়ের মধ্যে রাখা খড়ের ঢিপির মাঝখানে আগুন লাগলে আমি ভয় পেয়ে বাড়ি ছেড়ে পরিবার নিয়ে অন্যত্র গিয়ে রাত্রি যাপন করি।

গংগাচড়ায় একইস্থানে ৮ দিন ধরে আগুন, এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি

জানা যায় সোমবার রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন গংগাচড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাসলিমা বেগম, গঙ্গাচড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সুশান্ত কুমার, সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আল সুমন আব্দুল্লাহ ও সদর ইউনিয়ন আওয়ামী-লীগ এর সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান লিজু সহ অনেকেই।

এদিকে আজ মঙ্গলবার আবারো বিকাল ৩ ঘটিকার সময় দুলাল মিয়ার খড়ের ঢিপিতে আগুন লাগলে ঘটনা শুনে বিভিন্ন এলাকা থেকে ঘটনাস্থল দেখার জন্য শত শত লোক লোকজন ছুটে আসছে । পুরো এলাকায় বিষয়টি নিয়ে একপ্রকার রুপকথার গল্পের মতো চাঞ্চল্য তৈরী হয়েছে। পাশাপাশি এ বিষয়ে জানার জন্য কৌতুহলী পরিবেশ বিরাজ করছে।

একই জায়গায় বারংবার আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে জানতে গংগাচড়া ফায়ার সার্ভিস ডিফেন্স স্টেশন অফিসার মোঃ নাসিম রেজার সাথে কথা হলে তিনি বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেন। অগ্নিকাণ্ডের প্রাথমিক কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন অগ্নিকাণ্ডের প্রকৃত কারণ উৎঘাটনের চেষ্টা চলছে।ঘটনাস্থলে গংগাচড়া ফায়ার সার্ভিস এর দুটি ইউনিট কাজ করছে।

গংগাচড়ায় একইস্থানে ৮ দিন ধরে আগুন, এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি

এ খবর লেখা অব্দি কোন কারণ ছাড়াই থেমে থেমে উক্ত দুই বাড়ির বিভিন্ন স্থানে রাখা খড়ের ঢিপিতে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেই চলছে । যথাযথ কোন কারণ উৎঘাটন করতে পারেনি গংগাচড়া ফায়ার সার্ভিস ডিফেন্স ও গঙ্গাচড়া মডেল থানা।

এ ব্যাপারে ওসি সুশান্ত কুমার সরকার জানান প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে যেহেতু আগুন দেখতে গ্যাসের আগুনের মতো রঙ্গিন। তাই গ্যাস সৃষ্ট হতে পারে। তবে তদন্ত চলছে।

দেখা হয়েছে: 2000
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।
সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
সহকারী সম্পাদকঃ মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪