|

গঙ্গাচড়ায় পল্লীবন্ধু এরশাদের ৯১তম জন্ম বার্ষিকী পালিত

প্রকাশিতঃ ১১:৩৪ অপরাহ্ন | মার্চ ২০, ২০২০

গঙ্গাচড়ায় পল্লীবন্ধু এরশাদের ৯১তম জন্ম বার্ষিকী পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, গঙ্গাচড়া, রংপুরঃ রংপুরের গঙ্গাচড়ায় ৬৮ হাজার গ্রাম বাংলার নয়নের মনি ৯ বছরের সাবেক রাষ্ট্রপতি সফল রাষ্ট্র নায়ক ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান পল্লী বন্ধু আলহাজ্ব হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদের ৯১তম জন্ম বার্ষিকী পালন করা হয়েছে ।

শুক্রবার রাতে উপজেলা জা’পার কার্যালয়ে জন্মদিন উপলক্ষে কেক কাটা ও দোয়া মাহফিল এর আয়োজন করা হয়। এ সময় উপস্থিত নেতৃবৃন্দ মরহুম রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সৃতি চারণ করে তার বর্ণাঢ্য জীবন নিয়ে আলোকপাত করেন।

মরহুম হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ১৯৩০ সালের এই দিনে তৎকালীন রংপুর জেলার কুড়িগ্রাম মহকুমার নানাবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মুহম্মদ মকবুল হুসেইন ছিলেন পেশায় আইনজীবী। ১৯৫০ সালে রংপুর কারমাইকেল কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন এরশাদ। ১৯৫২ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে কমিশন অফিসার হিসেবে যোগ দেন।

১৯৬০ থেকে ১৯৬২ সালে তিনি চট্টগ্রাম ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টে অ্যাডজুট্যান্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ১৯৬৬ সালে তিনি কোয়েটার স্টাফ কলেজ থেকে স্টাফ কোর্স সম্পন্ন করেন। ১৯৬৮ সালে তিনি শিয়ালকোটে ৫৪ ব্রিগেডের মেজর ছিলেন।

১৯৬৯ সালে লেফটেন্যান্ট কর্নেল হিসেবে পদোন্নতি লাভের পর ১৯৬৯ ও ১৯৭০ সালে ৩ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের কমান্ড্যান্ট ও ১৯৭১ থেকে ১৯৭২ সালে ৭ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের কমান্ড্যান্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ১৯৭৩ সালে পাকিস্তান থেকে দেশে ফেরার পর তাকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে অ্যাডজুট্যান্ট জেনারেল হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়।

১৯৭৩ সালের ১২ ডিসেম্বর তিনি কর্নেল ও ১৯৭৫ সালের জুন মাসে ব্রিগেডিয়ার পদে পদোন্নতি পান। ১৯৭৫ সালের ২৪ আগস্ট ভারতে প্রশিক্ষণরত অবস্থায় তিনি মেজর জেনারেল হিসেবে পদোন্নতি পান ও ডেপুটি চিফ অব আর্মি স্টাফ হিসেবে নিয়োগ পান। ১৯৮২ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত সেনাপ্রধানের দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৮১ সালের ৩০ মে রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান নিহত হওয়ার পর ১৯৮২ সালের ২৪ মার্চ তিনি রাষ্ট্রক্ষমতা গ্রহণ করেন। ১৯৮৬ সালে তিনি জাতীয় পার্টি প্রতিষ্ঠা করেন।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে নানা নাটকীয়তার পর রংপুর-৩ আসন থেকে তিনি নির্বাচিত হন এবং ২০১৯ সালে না ফেরার দেশে পাড়ি যমান।

এতে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক নুর আমিন, সদস্য সচিব আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা জাতীয় যুব সংহতির সাবেক আহবায়ক মিঠু চৌধুরী, যুগ্ম আহবায়ক মনোয়ারুল ইসলাম, জাতীয় সাইবার পার্টির সভাপতি মাহফুজার রহমান, সাধারণ সম্পাদক সুজন আহম্মেদ, যুব সংহতির নেতা শিপন মিয়া, লেবু মিয়া, খতিবসহ উপজেল জাতীয় পার্টি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এসময় মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা সহ দেশবাসীর উদ্দেশ্যে দোয়া করা হয়।

দেখা হয়েছে: 83
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।
সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
সহকারী সম্পাদকঃ মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
প্রকাশকঃ মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪