fbpx

|

তানোরে আইডিয়াল স্কুলে মাদক সেবন, গাঁজাসহ আটক ২

প্রকাশিতঃ ৪:৩৮ অপরাহ্ন | সেপ্টেম্বর ১১, ২০২২

তানোরে আইডিয়াল স্কুলে মাদক সেবন, গাঁজাসহ আটক ২

তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোর উপজেলার কলমা ইউনিয়ন( ইউপি) এলাকার বহুল আলোচিত সমালোচিত ব্যক্তি মালিকা ধীন প্রাইভেট কলমা আইডিয়াল স্কুলের ভিতরে মাদক সেবনের অপরাধে পুলিশ আটক করেছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। গত শনিবার সন্ধ্যার দিকে ঘটে আটকের এই ঘটনা।

আটককৃত রা হলো স্কুলের গাড়ী চালক হারুনুর রশিদ(২৫) সে কলমা বেলপুকুর গ্রামের আফসার আলীর পুত্র ও রকি(২০) সে কলমা উত্তরপাড়া গ্রামের একরামুলের পুত্র। তাদের দেহ তল্লাসি করে ১ শো ২৫ গ্রাম গাজা উদ্ধার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন ওসি কামরুজ্জামান মিয়া। তাদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করে রোববার আদালতে প্রেরন করা হয়েছেল। এর আগে ওই স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকার পরকিয়ায় ভেঙ্গে যায় ঘর সংসার। ফলে একের পর এক অপরাধে স্কুল ও প্রধানকে নিয়ে চরম সমালোচনা ছড়িয়ে পড়েছে।

স্কুলটির মালিক সাদিকুল জানান, বিগত করোনা ভাইরাসের পর থেকে হারুন ও রকি স্কুল শিক্ষার্থীদের যাওয়া আসার গাড়ী চালক। গত প্রায় এক মাস আগে জানতে পেরে হারুনকে সতর্ক করা হয়েছিল। কিন্তু না শোনার জন্য পুলিশের হাতে আটক হল। তাদের বাড়ি জানতে চাইলে কলমা বাজার এলাকায় ছাড়া আর কিছুই বলেন নি তিনি। এই সাদিকুল নাচোল বিএম কলেজের শিক্ষক।

তিনি কলমা বাজারে গড়ে তুলেছেন কলমা আইডিয়াক স্কুলটি। এর আগে সাদিকুলের ভাগনে ওই স্কুলের শিক্ষক শাহাদাৎ বিবাহিত এক মেয়ের মায়ের সাথে পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়লে সালিশ বিচারে শিক্ষিকার স্বামী তালাক দেন। এত গুরুতর অপরাধ সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুক অনলাইন পোর্টাল ও পত্রিকায় প্রতিবেদন আসে। তারপরও সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কোন ধরনের নজরদারি নেই। তবে এসব ঘটনায় চরম বিব্রত প্রকাশ করে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খাদেমুন্নবী বাবু চৌধুরী সাব জানিয়ে দেন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে বন্ধের ব্যবস্হা করা হবে।

সরেজমিনে, উপজেলার কলমা বাজারে যাওয়ার আগেই মুল রাস্তার উত্তরে টিন দিয়ে ঘর করে বিশাল এরিয়া নিয়ে বে সরকারী ভাবে কলমা আইডিয়াল স্কুলটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। পাশাপাশি রাস্তার দক্ষিণে পাকা দ্বিতল ভবনে থাকছে শিক্ষার্থীরা। সেখানে অবাধে ছেলে মেয়েদের যাতায়াত।

স্হানীয়রা জানান, প্রকাশ্যে দিবালোকে নিয়মের তোয়াক্কা না করে সাদিকুল স্কুলটি গড়ে তুলে বানিজ্যসহ নানা অপকর্মে জড়িয়ে পড়ছে। সাদিকুল নাচোল বিএম কলেজে চাকুরী করার পরও কিভাবে স্কুল গড়ে তুলতে পারেন। আমরা একাধিক বার সংশ্লিষ্ট প্রাথমিক ও মাধ্যমিক দপ্তরে জানিয়েও কোন সুরাহা হয় নি। বরং দিনের দিন চরম বেপোরয়া হয়ে উঠেছে স্কুলের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা।

সাদিকুল আরো জানান দুই চালককে প্রতিমাসে ৮ হাজার টাকা করে বেতুন দেওয়া হয়। তারপরও অগচরে অন্যায় করলে শাস্তি পেতেই হবে। তারা অত্যান্ত বখাটে, কিছু বলাও যায় না। প্রশাসন আটক করে স্কুলের উপকার করেছে।

আপনি একটি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কিভাবে স্কুল গড়ে তুলেছেন জানতে চাইলে তিনি জানান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষিতরাই গড়ে তুলবে। শুধু আমার স্কুল না স্বয়ং তানোর সদরে স্কুলের গায়ের উপর স্কুল গড়ে উঠেছে। সে সব স্কুলেও কোন না কোন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক রা ক্লাশসহ পরিচালনা করছেন।

থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি কামরুজ্জামান মিয়া জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দিয়ে নিয়ম অনুযায়ী আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।

দেখা হয়েছে: 44
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!