fbpx

|

তানোরে পিতাকে পিটিয়ে জমির দলিল ও টাকা ছিনতাই

প্রকাশিতঃ ৯:০০ অপরাহ্ন | নভেম্বর ১০, ২০২২

তানোরে পিতাকে পিটিয়ে জমির দলিল ও টাকা ছিনতাই

তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে মাদকাসক্ত ছেলেরা বয়স্ক পিতাকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারপিট করে টাকা জমির দলিল ও চাবি ছিনিয়ে নেয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় বয়স্ক পিতা এক প্রকার আতংকে দিন পার করছেন।

উপজেলার চান্দুড়িয়া বাজারে ঘটে চাঞ্চল্যকর লোমহর্ষক ঘটনাটি ঘটে রয়েছে। এঘটনার বিচার চেয়ে পিতা আব্দুল বাদি হয়ে ছেলে ও পু্ত্র বধুদের বিবাদী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দেন। কিন্তু অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা এএসআই জুলফিকার থানায় ডেকে পিতা কুদ্দুসকেই গালমন্দ করে চেয়ার তুলেন মারতে।

জানা গেছে, গত মাসের ৩০ অক্টোবর রোববার উপজেলার চান্দুরিয়া ইউপির চান্দুড়িয়া বাজারে হাটের দিনে পিতা আব্দুল কুদ্দুসকে বাজারে পেয়ে ছেলে বাবলু ও কামাল জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায়। তুলে নিয়ে যাওয়ার পর তার পিতাকে নানা ভাবে নির্যাতন করে নগদ ৫০ হাজার টাকা ও জমির দলিল এবং চাবি কেড়ে নেয়।

সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ মাদকাসক্ত ছেলেদের হাত থেকে রক্ষা করে নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। পরদিন পিতা বাদি হয়ে দুই ছেলে ও তাদের স্ত্রী কে বিবাদী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাপ ও ছেলেদের থানায় ডাকেন। ডাকার পর ছেলেদের পক্ষ নিয়ে পিতা আজেবাজে কথা বলে চেয়ার দিয়ে মারতে চান পুলিশের এএসআই জুলফিকার বলেও জানান ভুক্তভোগী পিতা কুদ্দুস।

তিনি আরো জানান, আমাকে তুলে নিয়ে গিয়ে ছেলেরা মারধর করে টাকা জমির কাগজ নিয়ে নেয়। আমার ৯ বিঘামত জমি ছিল। মাত্র দুই বিঘা রেখে ছেলে মেয়েদেরকে দিয়ে দিয়েছি। যে দুবিঘা জমি আছে সেটাও তারা নেওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে পড়েছে। আমি চরম আতংকে দিনপার করছি।যে কোন সময় তারা আমাকে মেরে ফেলবে বলে হুমকি ধামকি দিচ্ছে। থানা পুলিশ এসে আমাকে উদ্ধার করেছে। আর থানায় ডেকে আমাকেই গালমন্দ করে মারতে চায়।

তবে ছেলে বাবলু ও কালাম অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, আমরা বাবাকে বাড়িতে ডেকে যে দুবিঘা জমি আছে সেগুলো অন্যত্র বিক্রি করবেন শুনেছি, এজন্য বাড়িতে ডাকা হয়েছিল।

অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা এএসআই জুলফিকার জানান, অভিযোগের মিমাংসা হয়ে গেছে।

দেখা হয়েছে: 35
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!