fbpx

|

তানোরে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি যাদুঘরের জায়গা দখল

প্রকাশিতঃ ৬:৪২ অপরাহ্ন | জানুয়ারী ২০, ২০২৩

তানোরে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি যাদুঘরের জায়গা দখল

তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি যাদু ঘরের নির্ধারিত জায়গা দখল করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার কামারগাঁ বাজার মসজিদের পাশে ওই জায়গায় গত বৃহস্পতিবার বিকেলের দিকে গাছ লাগানোর ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহসীলদার কাউসার হোসেন বাধা দিলে বাকবিতণ্ডা ও গায়ে হাত দেন দখলদার বহুল আলোচিত বিসিআইসির সার ডিলার ভূমিগ্রাসী বিকাশ। এতে করে একজন প্রসিদ্ধ ব্যবসায়ীর এমন খাম খেয়ালী পনার জন্য আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি তুলেছেন জাতির সূর্য সন্তান থেকে শুরু করে স্থানীয়রা।

জানা গেছে, উপজেলার কামারগাঁ ইউনিয়নের কামারগাঁ বাজার মসজিদের পাশে সরকার নির্ধারিত সরকারী মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি জাদুঘর নির্মানের জন্য জায়গা নির্ধারন করা আছে। সেই জায়গা দখলে নিতে কামারগাঁ বাজারের বিসিআইসির সার ডিলার ও ডিলার সমিতি সাবেক সভাপতি মৌসুমি ট্রেডার্সের মালিক বিকাশ কুমার দাস গত বৃহস্পতিবার জোর পূর্বক গাছ রোপন করেন। মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি যাদু ঘর নির্মানের জায়গায় গাছ রোপনের সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে উপজেলা জুড়ে হইচৈই শুরু হয়ে যায়।

একজন ব্যবসায়ী কিভাবে কোন ক্ষমতায় এজায়গায় গাছ রোপন করলেন এমন প্রশ্ন মুক্তিযোদ্ধা দের।

কামারগাঁ ইউনিয়ন ভুমি অফিসের নায়েব কাউসার জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছ রোপন দেখে উত্তোলন করতে বলা হলে আমার উপর চড়াও হয় বিকাশ। আমি বার বার বলছি এখানে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি যাদু ঘরের জায়গা, দ্রুত গাছ সরিয়ে ফেলেন এমন কথায় তিনি প্রচন্ড ক্ষিপ্ত হয়ে ন্যায় অন্যায় ভাবে গালি গালাজ করেন। আগামী রোববারের আগে গাছ উত্তোলন না করলে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হবে না হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিকাশ কুমার জানান, জায়গাটি ফাঁকা ছিল এজন্য কিছু ফুলের গাছ রোপন করা হয়েছে তুলে ফেলা হবে। আপনি কার অনুমতি নিয়ে গাছ রোপন করে দখলে নিচ্ছেন জানতে চাইলে তিনি জানান, এখানে অনুমতির কি প্রয়োজন আছে। কামারগাঁ বাজারের সরকারি জায়গায় দলীয় অফিস, অনেকে জোরপূর্বক দখলে নিয়ে দোকান ঘর করেছেন। সেদিকে নজর নাই। কয়েকটি ফুলের গাছ রোপনের জন্য আমাকে ভূমিদস্যু, ভূমি গ্রাসী থেকে শুরু করে অকাথ্য ভাষায় কিছু ব্যক্তিরা গালমন্দ করেছেন নায়েবের সামনে।

স্থানীয়রা জানান, জায়গাটিতে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি যাদু ঘর নির্মান হবে। সেই জায়গাতে কেন বিকাশের মত বড় ব্যবসায়ী গাছ লাগাবেন। আজ গাছ লাগিয়েছে, ব্যবস্থা না নিলে পরে গাছের ক্ষতিপুরুন চেয়ে মামলা করবে। মামলা হলে নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত দখলে রাখবেন, এটাই বিকাশের কৌশল। কারন এভাবে করে বাজারের জায়গা দখলে রয়েছে তার এবং যার উপরে রাগ আছে রাতে মদপান করে তাকে অকাথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন বিকাশ। তার দিনে এক রকম আচরন, রাতে আরেক রকম। তার কে নাকি প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন লোক আছে। এভয়ে কেউ কিছু বলে না তাকে, বলেও লাভ হয় না।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পংকজ চন্দ্র দেবনাথ জানান, ঘটনা সম্পর্কে অজানা, জায়গায় কোন কিছু রোপন করা যাবে না, খোজ খবর নিয়ে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দেখা হয়েছে: 23
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!