fbpx

|

ত্রিশালে জোরপূর্বক জমি দখল, হামলা-ভাংচুর, লুটপাট

প্রকাশিতঃ ৪:২৩ অপরাহ্ন | ডিসেম্বর ২৬, ২০২২

ত্রিশালে জোরপূর্বক জমি দখল, হামলা-ভাংচুর, লুটপাট

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ত্রিশালে জোরপূর্বক জমি দখল, বাড়ি-ঘর ভাংচুর, লুটপাট ও নারীদের মারধোরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়নে, কাজিগ্রাম নামা পাড়া জনাব আলী সরকার বাড়ী কাসুম আলী নামে এক ব্যক্তির জমি জোর পূর্বক দখল করে তার ভাতিজা।

বালিপাড়া ইউনিয়নের কাজিগ্রাম নামা পাড়া গ্রামের কাসুম আলীর ভাতিজা নবী হুসেন সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো। নবীর নামে ৫শতাংশ জমি লিখে দিতে নানাভাবে চাপ সৃষ্টি করে এবং ৫০লাক্ষ টাকা দাবি করে। জমি লিখে না দেয়ায় এবং টাকা না দেওয়ায় নবী ও তার লোকজন নিয়ে গত ২০ডিসেম্বর জোর পূর্বক কাসুম আলী জমি দখল করে।

কাসুম আলীর ছেলে শরিফ জানান, আমার বাবা এবং আমরা ৫০বছর ধরে এই বাড়িতে বসবাস করছি। ঐ দিন আমার বৃদ্ধ বাবা এবং ভাবি বাড়িতে ছিলো হটাত করে আমার চাচাতো ভাই নবী তার শশুর বাড়ির লোকজন নবাব আলী, তার শালা সায়েম, মামাশ্বশুর তাফা ও এলাকার কয়েকজন গুন্ডা নিয়ে আমাদের বাড়িতে হামলা করেন এবং আমার বাবা এবং ভাবিকে মারধোর করে গুরুতর আহত করে এবং আমাদের বসত বাড়ি ভাংচুর করে নগদ টাকা-স্বর্ণালঙ্কার লোট করে নিয়ে যায়।

কাসুম আলীর পুত্রবধূ মারধরের শিকার নাসিমা বলেন, দুপুরে হঠাৎ করে নবী,তার শশুর বাড়ির লোকজন নবাব আলী, তার শালা সায়েম, মামাশ্বশুর তাফার নেতৃত্বে এলাকার ২৫-৩০ জন যুবক আমাদের বাড়িতে প্রবেশ করে। বাড়িতে থাকা আমার শশুর এবং আমাকে মারপিট শুরু করে। আমার ভাতিজা ফিরাতে আসলে তাকেও মারপিট শুরু করে। তারা আমাদের ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে সবকিছু ভাঙচুর শুরু করে এবং স্বর্ণালঙ্কার, নগদ টাকাসহ সব কিছু নিয়ে যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক এলাকাবাসী জানান, ভাতিজা নবী তার শশুর বাড়ির লোকজন ও ভাড়াটিয়া গুন্ডাপান্ডা নিয়ে তার চাচা কাছুম আলী ও তার চাচাতো ভাইয়ের বউ নাছিমাকে ঘর থেকে টেনে হিঁচড়ে বের করে এবং নাসিমার গলার চেইন কানের দুল নাকের ফুল ছিনিয়ে নিয়ে যায় ও নাছিমাকে মারধর করে, নাসিমার ভাতিজা সাব্বির মার দৌড় ফিরাতে গিয়ে তাকেউ মারধর করে।

এ বিষয়ে অভিযোক্ত নবী হোসেনের বাড়িতে গেলে কেউ এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হয়নি।

এ বিষয়ে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ ইসমাইল হোসেন জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ২ পক্ষের মাঝে বিরোধ চলে আসছে। আমরা স্থানীয়ভাবে এলাকায় সালিশীর মাধ্যমে একাধিকবার চেষ্টা করেছি। কিন্তু নবী সালিশীর বিচার না মেনে ঘর ভেঙে ফেলে।

এ বিষয়ে বালিপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ বাদল জানান, জমি নিয়ে বিরোধের জেরে হামলা-মারামারির ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য আমি ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে চেষ্টা করেছি। তিনি বলেন, ৪০/৫০ বছর যাবত কাসুম আলী এখানে আছেন। তবে নবী বৃদ্ধ কাসুম আলীর ঘরটি ভেঙে ঠিক করেনি।

এ বিষয়ে ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মাইনউদ্দিন জানান, এ ধরনের অভিযোগ পাইনি। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দেখা হয়েছে: 58
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!