fbpx

|

ফেসবুকে ‘অশ্লীল’ ভিডিও, যা বললেন মাহিয়া মাহি!

প্রকাশিতঃ ১০:৫১ অপরাহ্ন | মে ৩১, ২০১৯

বিনোদন বার্তাঃ বেশ কিছুদিন ধরেই ফেসবুক আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন চলচ্চিত্র জগতের তারকারা। কয়েক দিন পর পরই শোনা যায় তাদের ফেসবুক আইডি হ্যাক হওয়ার কথা। যেখান থেকে প্রায়ই বিভিন্ন আপত্তিকর জিনিস পোস্ট করা হয়। এবার সেই কাতারে যুক্ত হলো নায়িকা মাহিয়া মাহির নাম। ফেসবুকে ‘অশ্লীল’ ভিডিও, যা বললেন মাহিয়া মাহি!

সম্প্রতি নায়িকা মাহিয়া মাহির ভেরিফায়েড অফিশিয়াল ফেসবুক পেজটি হ্যাকড হয়। বৃহস্পতিবার (২৩ মে) ভোর রাত থেকে আইডি ও পেজের নিয়ন্ত্রণ হারান বলে একটি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন জনপ্রিয় এই নায়িকা।

আইডি ডিজেবল থাকলেও মাহির পেজটি শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত চালু ছিল। এমনকি সেখানে একটি ‘অশ্লীল’ ভিডিও প্রকাশ করে হ্যাকার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়। তবে ভিডিও নিয়ে কিছুই জানেন না এই নায়িকা।

মাহিয়া মাহি বলেন, ব্যক্তিগত আইডি হ্যাকড করে ডিজেবল করে দিয়েছে। তবে পেজ গতকাল (শনিবার) পর্যন্ত একটিভ ছিল। সেটিও গতকাল সন্ধ্যার সময় বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, পেজে একটি ‘আপত্তিকর’ ভিডিও ছিল, সেটি ৯৯৯-এ যোগাযোগ করার পর পুলিশি সাহায্য নিয়ে সরানো হয়েছে।

মাহিয়া মাহির সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, ২০১৫ সাল জাজ মাল্টিমিডিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক ফাটলের পর পেজটি জাজ কর্তৃপক্ষে তাদের নিয়ন্ত্রণে রেখে দেয়। তখন পেজের অনুসারী ছিল ৭ লাখের বেশি। প্রায় ৪ বছর পেজটির নিয়ন্ত্রণ ছিল না মাহির কাছে। মাসখানেক আগে মাহি তার পেজটি নিজের দায়িত্বে রাখার পর ১০ লাখের বেশি অনুসারীসহ গত বৃহস্পতিবার আবার নিয়ন্ত্রণ হারান।

মাহিয়া মাহি বলেন, আমার প্রথম আইডি সামিরা আকতার নিপা মাহি গত বছর হ্যাকড হয়েছিল। এরপর দ্বিতীয় আইডি মাহিয়া মাহিও হ্যাকড হলো। কেন আমার সঙ্গে এমনটা হচ্ছে কিছুই বুঝতে পারছি না। আমার ভক্তরা অনেক সচেতন। কোনো আপত্তিকর ভিডিও বা ছবির মাধ্যমে তারা যেন বিভ্রান্ত না হয় ওই অনুরোধ রইলো।

এ প্রসঙ্গে ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ডিভিশনের অতিরিক্ত উপ কমিশনার মো. নাজমুল ইসলাম জানিয়েছেন, ‌মাহির ফেসবুক পেজ থেকে আপত্তিকর ভিডিওটি সরানো হয়েছে। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এ ধরনের ভিডিও আবারো কেউ প্রকাশ করতে চাইলে পারবে না। স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ তা বন্ধ করে দেবে।’

এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, কে বা কারা ফেসবুক পেইজটি হ্যাক করেছিল তা আমরা কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চেয়েছি। জানা মাত্রই তাকে অ্যারেস্ট করতে সক্রিয় হব আমরা।

প্রসঙ্গত, এর আগে মাহিয়া মাহির সঙ্গে শাহরিয়ার শাওন নামের এক ছেলের বিয়ে হয়েছিল বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। যা মাহি অস্বীকার করে। মাহির অনুমতি না নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ছবি প্রকাশ করা হয়। শাওন নিজেই তার ফেসবুক আইডিতে চিত্রনায়িকা মাহির সঙ্গে কিছু ছবি প্রকাশ করেন।

প্রকাশের পর থেকে আলোচনার ঝড় ওঠে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। নায়িকা মাহিয়া মাহির সঙ্গে ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপু বিয়ের পরদিন থেকেই কয়েকটি গণমাধ্যমে মাহির একাধিক বিয়ে সংক্রান্ত ছবি প্রকাশ হতে থাকে। সেখানে ছবি প্রকাশের পাশাপাশি দাবি করা হয় এর আগেও একাধিকবার মাহির বিয়ে হয়েছে। যদিও পরে তা মিধ্যে প্রমাণ হয়।

দেখা হয়েছে: 954
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!