fbpx

|

বাগমারা-পুঠিয়া মহাসড়ক সম্প্রসারণ কাজের টাকা গেছে বিভিন্ন মহলে

প্রকাশিতঃ ১২:১৩ অপরাহ্ন | নভেম্বর ১৯, ২০২২

রাজশাহী প্রতিনিধি:
সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তর আওতায় রাজশাহীর বাগমারা-পুঠিয়ায় সম্প্রসারণ উন্নয়ন কাজের টাকা গেছে ঠিকাদার, ইঞ্জিনিয়ার, এমপি ও মেয়রদের পকেটে। বাগমারা ভবানীগঞ্জ থেকে পুঠিয়া মহাসড়কের অবকাঠামোগত উন্নয়ন সম্প্রসারণ কাজ প্রায় শেষের পথে। এ রাস্তাটির কাজ শেষ হলে দূর হবে রাজশাহী,নওগাঁ ও নাটোর জেলার লক্ষ লক্ষ মানুষের দুঃখ-দুর্দশা দিন। এরই মধ্যে শেষ হয়েছে ২৭ কিলোমিটার এই রাস্তাাটির কাজ। কিন্তু অভিযোগ উঠেছে উন্নয়নের কাজের টাকা ভাগ বাটোয়ারা হয়েছে ঠিকাদার, ইঞ্জিনিয়ার, এমপি ও মেয়রদের মাঝে । এ রাস্তাটির কাজ শুরু হওয়ার পর থেকেই নিম্ন মানের ইট, কাদাযুক্ত বালু, রাস্তার পুরাতন ও নষ্ট ইট তুলে সেই রাস্তাতেই ব্যবহার করা হয়। সরজমিনে গিয়ে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে এই তথ্য পাওয়াগেছে। প্রথমে রাস্তার কাজে অনিয়ম শুরু হলে এলাকার মানুষ ফুষে উঠে কিন্তু সাবেক সর্বহারার নেতা আর্ট বাবু ও ক্ষমতাসিন দলের এমপি ও মেয়র ক্যাডারদের ভয়ে দুই উপজেলার মানুষ নিজের জীবনের কথা চিন্তা করে প্রকাশ্যে কথা বলতে ও প্রতিবাদ করতে পারেনি। তবে নাম প্রকাশ না করা শর্ত্তে এলাকার বেশকেছু জনসাধারন স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন আমরা শুনেছিলাম রাস্তাটি ২৪ ফিট প্রস্থ হয়ার কথা ছিল। কিন্তু বেশকেছু যাওগয়ায় রাস্তাাটি মধ্যে বিদ্যুৎতের পুল রেখে ১৭ থেকে ১৮ ফিট প্রস্থ করা হয়েছে রাস্তাটি। যা সড়জমিনে তদন্ত করলে বেডিয়ে আসবে একশত ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে করা কাজের দুর্নীতি-অনিয়মের পাড়ার। এই ২৭ কিলোমিটার দীর্ঘ রাস্তাটির ৬টি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে হয়েছে নিম্ম মানের আরসিসি ঢালাই। এর মধ্যে বাগমারার ভবানীগঞ্জ বাজারে ৫শত মিটার,তাহেরপুর বাজারে ৭৫০ মিটার,উঠিয়ার ধোপাপাড়া বাজারে ৪শত মিটার, ধোকড়াকুল বাজারে ৩শত মিটার, বাসুপাড়া বাজারে ৩৩০ মিটার এবং কার্তিকপাড়া বাজারে ৩৫০ মিটার। এদিকে,বাগমারার একজন জনপ্রতিনিধি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন পুঠিয়া টু ভবানিগঞ্জ রাস্তাা টি সড়ক ও জনপথ বিভাগের। আমাদের এমপি সাহেব এই কমিটির অন্যতম একজন সদস্য। তার নেতৃতে মহান জাতীয় সংসদে পুঠয়িা থেকে বাগমারা পাকা রাস্তাটি দ্রুত সংস্কারসহ প্রশস্থ করনের দাবী করেন এমপি নিজেই। এবং তাঁর দাবীর প্রেক্ষেেিত ২৭ কিলোমিটার রাস্তাটি প্রশস্থ করণ কাজের বরাদ্দ হয়। এবং কাজের শুরুতে পুঠিয়া উপজেলার কার্ত্তিক পাড়া এলাকাই মাটি দিয়ে সড়ক টি ভরাট করার সময় ছেলে পেলে বাধা দিলে আমাদের এমপিসহ মেয়র ক্যাডাররা বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন। এদিকে, এমপির বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ রয়েছে সাবেক সর্বহারার চার জেলার কমন্ডার আর্ট বাবুর কাছ থেকে বালু নেওয়ার জন্য এমপি সুপারিশ করেন। এলাকার মানুষজন আরও জানান প্রথমে কাদা যুক্ত বালু দেওয়া হয় এর পরে এলাকার মানুষের সমলোচনার মুখে পড়ে তিনি নিম্ন মানের বালু দেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তবে এমপি এনামুল হক বলছেন আমাকে কেও এবিষয়ে অভিযোগ করেনি। তুমি প্রথম বললে। তোমার যদি মনে হয় অনিয়ম বা দুর্নীতি হয়েছে তাহলে তোমার পত্রিকাই তুমি লেখ। তবে আর্ট বাবু কে বালু দেওয়ার ব্যাপারে আমি কোন সুপারিস করিনি। এবিষয়ে ঠিকাদার নওগাঁর আমিনুল হক প্রাইভেট লিমিটেডের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, রাস্থাটি ১৮ফিট প্রস্থ এবং বাজার এলাকায় ২৪ ফিট প্রস্থ করার কথা ছিলো। অন্যান্য রাস্তার তুলনায় এ রাস্তাটির কাজ ভালো হয়েছে বলে তারা দাবী করেন। উল্লেখ্য, ২০২১ সালের (২৭ ফেব্রুয়ারি শনিবার) সকাল ১০ টার সময় বাগমারার ভবানীগঞ্জ বাজারের গোডাউন মোড়ে রাস্তাটির প্রশস্থ করণ কাজের উদ্বোধন করেন ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক এমপি ও সড়ক ও জনপথ অধদিপ্তর রাজশাহীর অতরিক্তি প্রধান প্রকৌশলী সাদেকুল ইসলাম। তবে একশত ৩০ কোটরি অধিক টাকা ব্যয়ে এই ২৭ কিলোমিটার রাস্তার প্রথম ধাপের কাজ শেষ করা হয়েছে। এবং সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর রাজশাহী কাজটি বাস্তবায়ন করেছেন।

দেখা হয়েছে: 61
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!