fbpx

|

মদনে এক স্কুল শিক্ষার্থীকে একই দিনে ৪ টিকা

প্রকাশিতঃ ৪:৫৪ অপরাহ্ন | ফেব্রুয়ারী ১২, ২০২২

মদনে এক স্কুল শিক্ষার্থীকে একই দিনে ৪ টিকা

মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি: নেত্রকোনার মদনে স্কুল শিক্ষার্থীদের কোভিড ১৯ দ্বিতীয় ডোজ দেয়ায় সময় এক ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ৪ বার টিকা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তাৎক্ষণিক শিশুটি মায়ের কাছে চারবার টিকা দেয়ার বিষয়টি খুলে বললে মা আর এম ওর কাছে মৌখিক অভিযোগ করেন। পরে শিশুটিকে হাসপাতালে পর্যবেক্ষনে রাখা হয়েছে। শনিবার মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।

আবিদা বিনতে আজিজ নামের শিশুটি মদন পৌরসভার মাহমুদপুর গ্রামের আজিজুল হকের মেয়ে ও মদন শহীদ স্বরণিকা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

শিক্ষার্থী আবিদা বিনতে আজিজ জানায়, আমি ২য় টিকা নিতে শনিবার সকালে মদন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যাই। কাগজপত্র নার্সদের কাছে দিলে তারা আমাকে একটি চেয়ারে বসান। পরে আমাকে পর পর ৪টি টিকা দেন। কেন আমাকে চারটি পর পর টিকা দেয়া হল বিষয়টি মাকে খুলে বলি। মা ডাক্তারকে বিষয়টি বললে ডাক্তার আমাকে হাসপাতালে বেডে রাখে।

শিশুটির মা রাজিয়া সুলতানা বলেন,টিকা দেয়ার সময় আমি বাহিয়ে অপেক্ষা করছিলাম। মেয়েটি টিকা দিয়ে বের হয়ে তাকে চার বার টিকা দেয়া হয়েছে বলে জানান। আমি বিষয়টি ডাক্তারকে বলেছি। মেয়েটি মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ছে। তাকে ডাক্তার হাসপাতালে অবজারভেশনে রেখেছে। যে নার্স আমার মেয়েকে চারটি টিকা দিয়েছে তার শাস্তির দাবি করছি।

মদন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আর এম ও ডাক্তার রিফাত সাইদ জানান,মায়ের অভিযোগের প্রেক্ষিতে শিশুটিকে হাসপাতালে পর্যবেক্ষনে রাখা হয়েছে। শিশুটির অবস্থা বর্তমানে ভাল আছে।

স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাক্তার হুমায়ুন কবির বলেন, একটি শিশুকে চারটি টিকা দেয়া কোন ভাবেই সম্ভব নয়। শিশুটিকে হাসপাতালে পর্যবেক্ষনে রাখা হয়েছে। তবে কোন নার্স টিকা দিয়েছে শিশুটি বলতে পারছে না।

দেখা হয়েছে: 135
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!