fbpx

|

মদনে চোরকে আটক করে ছেড়ে দেওয়ার প্রতিবাদ করায় বাদীকে হুমকি

প্রকাশিতঃ ৬:১১ অপরাহ্ন | জুন ১০, ২০২১

মদনে চোরকে আটক করে ছেড়ে দেওয়ার প্রতিবাদ করায় বাদীকে হুমকি

শহীদুল ইসলাম, নেত্রকোণাঃ নেত্রকোণা জেলা মদন উপজেলায় মাঘান ইউনিয়নে ঘাটুয়া বাজারে গত ৯ই জুন বুধবার চোরকে আটক করে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়। অভিযোগে জানা যায়, গত ৮ই জুন মঙ্গল ঘাটুয়া গ্রামের রাত্রে নৌকা দিয়ে চুরি করার জন্য দলবদ্ধভাবে চোরেরা আসলে এলাকায় জানাজানি হয়ে যায়।

আশেপাশের লোকজন এসে চোরকে আটক করে। এতে একই গ্রামের আশিক তার বড় ভাইয়ের ঘরে টাকা চুরির ঘটনা চোরকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে চোর অকপটে স্বীকার করে। কিন্তু এলাকার প্রভাবশালী মৃত এখলাছ মিয়ার ছেলে সোহেল (৪০), মৃত আবুল কালামের ছেলে বর্তমান ইউপি সদস্য কবির মিয়া ও মাজু তালুকদারের ছেলে সুমন মিয়া (৩৫) এবং রামদাসখিলা গ্রামের বর্তমান ইউপি সদস্য আবুল হাসান (৪৫) বিবাদীকে খুন জখম ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করে আসছে।

কারণ সে চোর ধরার পর সাংবাদিকদের সংবাদ দেয়ায় তারা সংঘবদ্ধ হয়ে আসিক(৩৫)কে এলোপাতারিভাবে খিল-ঘুষি মারিয়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে পোলা জখম করে।

সরেজমিনে গেলে জানা যায়, বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ লাহুত ইয়ার চৌধুরী এ প্রতিনিধিকে বলেন, এলাকার দুইজন বর্তমান ইউপি সদস্যসহ গ্রামের কতিপয় কিছুসংখ্যক লোক আটককৃত চোরকে মদন থানায় প্রেরণ করার জন্য চৌকিদারের কাছে দিয়ে দেয়।

সাবেক ইউপি সদস্য আনিছ বলেন, বর্তমান ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য এলাকার কিছুলোক আলোচনা করে চোরকে ছেড়ে দেয়। এ বিষয়ে গতকাল চোরের একটি ভিডিও ফেসবুক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হয়।

এ বিষয়ে মদন থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফেরদৌস আলম এ প্রতিনিধিকে বলেন, চোর ছাড়ার ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দেখা হয়েছে: 160
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
আলী আরিফ সরকার রিজু
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪