fbpx

|

মদনে দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি গঠন। সুপারের বিরুদ্ধে অভিযোগ

প্রকাশিতঃ ২:৫৬ অপরাহ্ন | নভেম্বর ২৯, ২০২২

মদনে দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি গঠন। সুপারের বিরুদ্ধে অভিযোগ

শহীদুল ইসলাম নেত্রকোনা প্রতিনিধিঃ নেত্রকোনার মদনে নীতিমালা অনুসরণ না করে গোপনে ম্যানেজিং কমিটি গঠনের অভিযোগ উঠেছে উপজেলার বালালী বাঘমারা খন্দকার আব্দুর রাজ্জাক দাখিল মাদ্রাসা সুপার বজলুর রহমানের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার বরাবরে অভিযোগ দায়ের করেন প্রতিষ্ঠানটির দাতা সদস্য আব্দুল হাই সরকার।

অভিযোগে জানা যায়, সম্প্রতি উপজেলা তিয়শ্রী ইউনিয়নের বালালী বাঘমারা খন্দকার আব্দুর রাজ্জাক দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি গঠন করা হয়। মাদ্রাসার শিক্ষক, অভিভাবক, শিক্ষক প্রতিনিধি ও দাতা সদস্য কাউকেই না জানিয়ে নিজ স্বার্থে কমিটি গঠন করে মাদ্রাসা সুপার। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটির দাতা সদস্যের স্বাক্ষর জাল করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট কাগজপত্রাদি প্রেরণ করা হয়েছে।

অভিযোগকারী আব্দুল হাই সরকার বলেন, ‘মাদ্রাসায় নতুন কমিটি গঠন করার বিষয়ে আমিসহ শিক্ষকরাও অবগত নন। আমাকে না জানিয়ে স্বাক্ষর জাল করেছে। অভিভাবক ও এলাকার মানুষ এ ঘটনায় হতবাক। তদন্ত সাপেক্ষে সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানাচ্ছি।’

মাদ্রাসার অন্যান্য শিক্ষক ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরাও বিষয়টি জেনে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তারা বলছেন, গত বৃহস্পতিবার মাদ্রাসার শিক্ষকদের হলরুমে নির্বাচনী তফছিলের কোন তালিকা দেখা যায়নি। অথচ রবিবার মাদ্রাসায় গিয়ে তপছিল দেখতে পাওয়া যায়। এছাড়াও মাদ্রাসায় ম্যানেজিং কমিটির কোন নির্বাচন হয়নি বলেও জানায় তারা।

এছাড়া তিয়শ্রী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মজিবুর রহমান কাছে কমিটির বিষয় জানতে চাইলে তিনি জানান, গত ১৪ নভেম্বর মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচন হয়েছে তা আমার জানা নেই ।

মাদ্রাসার সহকারী সুপার মো: রুহুল আমীন খান বলেন, ‘মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির কোন নির্বাচন হয়নি। এছাড়া আর কিছু জানেন না বলে জানান তিনি।

বর্তমান সভাপতি আরজু মিয়া জানান, ‘কমিটি গঠনের বিষয়টি সবাই জানে এবং অভিভাবক সদস্যদের ভোটের মাধ্যমেই আমি সভাপতি নির্বাচিত হয়েছি।’

সুপার বজলুর রহমান বলেন, ‘নীতিমালা অনুসরন করে ম্যানেজিং কমিটি গঠন করা হয়েছে। একাধিক প্রার্থী না থাকায় সিলেকশনে কমিটি গঠন করা হয়েছে। তবে মনোনয়ন কিনতে মাইকিং করা হয়নি বলে স্বীকার করেছেন।

উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার জোছনা আক্তার বলেন, ‘ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে মাদ্রাসার প্রতিটি ক্লাসে এবং শিক্ষকদের রুমে টানাতে হয়। তারপর মনোনয়ন কিনতে এলাকায় মাইকিং ও চিঠির মাধ্যমে অভিভাবকদের জানাতে হয়। এই দায়িত্ব সুপার পালন করে থাকেন। সুপার যদি তা গোপন করে থাকে তবে সকল দায় দায়িত্ব তার।’ শিক্ষা অফিসে সকলের উপস্থিতিতে সিলেকশনের মাধ্যমে ম্যানেজিং কমিটি গঠন করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানজিনা শাহরীন জানান, ‘এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

দেখা হয়েছে: 83
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!