fbpx

|

যৌন হয়রানি প্রতিরোধে সকলকে এক হওয়ার আহবান

প্রকাশিতঃ ১২:৩২ পূর্বাহ্ন | জানুয়ারী ১০, ২০১৮

অনলাইন বার্তাঃ

নারীর প্রতি যৌন হয়রানি প্রতিরোধে সবাইকে এক হওয়ার ডাক দিয়েছেন তারকা উপস্থাপক ও অভিনেত্রীরা। রবিবার রাতে ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসে মর্যাদাপূর্ণ গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসের ৭৫তম আয়োজনে অনুপ্রেরণাদায়ী ও শক্তিশালী ভাষায় তারা এ আহবান জানিয়েছেন।

মার্কিন চলচ্চিত্রাঙ্গনে ঝড় তোলা একের পর এক যৌন হয়রানি ও লাঞ্ছনার অভিযোগের মধ্যে এটাই ছিল হলিউডকেন্দ্রিক প্রথম কোনো পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। যৌন হয়রানির শিকার নারীদের প্রতি সংহতি জানাতে তারকা অভিনেত্রীরা গোল্ডেন গ্লোবের লাল গালিচায় এসেছিলেন কালো রঙের পোশাক পরে।

প্রতিবছর মর্যাদাপূর্ণ এ পুরস্কারের সময় বিভিন্ন চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন সিরিজের প্রতি গণমাধ্যম ও সাধারণের আগ্রহ থাকলেও এবছরের মূল আকর্ষণ ছিল ‘মি টু’ ও ‘টাইমস আপ’ প্রচারাভিযান নিয়ে তারকাদের অভিমত। হয়রানি ও নির্যাতনের শিকার নারীদের প্রতি সংহতি জানাতে গতবছর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয় ‘মি টু হ্যাশট্যাগ’ আন্দোলন। পরে চলচ্চিত্র অঙ্গনসহ অন্যান্য পেশায় নারীর প্রতি হয়রানি ঠেকাতে তারকা অভিনেত্রীরা নেন নতুন উদ্যোগ- টাইমস আপ। বেভারলি হিলসের গোল্ডেন গ্লোব আয়োজনে উপস্থাপক এবং পুরস্কার বিজয়ীদের মুখেও ছিল এ নিয়ে কথকতা।

উপস্থাপক সেথ মেয়ারস অনুষ্ঠানের শুরুতেই এ মুহূর্তে হলিউডের সবচেয়ে আলোচিত বিষয়ের দিকে ইঙ্গিত করে উপস্থিত সবাইকে সম্ভাষণ জানান। ভদ্রমহিলা এবং বাকি থাকা ভদ্রমহোদয়ণ- আপনাদের স্বাগতম। এটা ২০১৮। অবশেষে গাঁজা বৈধ হয়েছে, যৌন হয়রানি নয়।

আজকের রাতে উপস্থিত প্রতিদ্বন্দ্বী পুরুষ অভিনেতারা, গত তিন মাসের মধ্যে এটাই প্রথমবার, এখন অন্তত আপনাদের নাম জোরে উচ্চারিত হলে আতঙ্কিত হবেন না।

এ অনুষ্ঠানে সবচেয়ে বেশি আলোচনার সৃষ্টি করেছে অপরাহ উইনফ্রের ভাষণ। প্রথম কোনো কৃষ্ণাঙ্গ হিসেবে মর্যাদাপূর্ণ সেসিল বি ডেমিলে পুরস্কার নিতে এসে জনপ্রিয় এ টেলিভিশন উপস্থাপক বলেন, আমাদের সবার কাছে থাকা সবচেয়ে শক্তিশালী হাতিয়ার হচ্ছে- সত্যি কথা বলা। পুরুষদের ক্ষমতার বিরুদ্ধে সত্য বলার সাহস করা নারীদের কথা শোনা কিংবা বিশ্বাস করা হতো না বহুকাল। সে সময় পেরিয়ে গেছে। তাদের সময় পেরিয়ে গেছে। টাইমস আপ

দিগন্তে এখন নতুন দিন- অপরাহর এ কথায় দাঁড়িয়ে করতালি দিয়ে সমর্থন জানান উপস্থিত নারী-পুরুষ সকলেই। যৌন হয়রানি প্রতিরোধের ডাক ছিল লরা ডের্নের মুখেও। বিগ লিটল লাইজ’ এর জন্য সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রীর পুরস্কার জেতার পর দেওয়া ভাষণে তিনি বলেন, আমাদের অনেককেই এসব সম্পর্কে কথা না বলতে শেখানো হয়েছিল। তিনি বলেন,এটা ছিল নীরবতার সংস্কৃতি, সেটাই ছিল স্বাভাবিক। এখন হয়ত আমরা আমাদের সন্তানদের কথা বলতে শেখাব, যা ধূমকেতুর মত আমাদের সংস্কৃতির পুনর্জাগরণ ঘটাবে।

দেখা হয়েছে: 383
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!