fbpx

|

নড়াইলে জমি নিয়ে বিরোধে সংঘর্ষ, পাল্টাপাল্টি মামলা

প্রকাশিতঃ ২:১২ অপরাহ্ন | জানুয়ারী ২২, ২০১৮

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি■ 
নড়াইলের পানিপাড়া অরুণিমা ইকো পার্কের একটি জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে গুলিবর্ষনের ঘটনায় পার্কের মালিক ও খাশিয়াল ইউপির সাবেক চেয়ারম্যানকে আসামী করে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার রাতে সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বিশ্বাস ও পার্কের সহকারি ম্যানেজার মিজানুর রহমান ঠাকুর বাদি হয়ে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করেছেন। উভয় মামলায় মোট ৩৮ জনকে আসামী করা হয়েছে।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, অরুণিমা ইকো পার্কের মালিক মোল্যা খবির উদ্দিনসহ ১৮ জনকে আসামী করে প্রথম মামলাটি দায়ের করেছেন মিজানুর রহমান বিশ্বাস। মামলার বিবরণে জানা যায়, খবির উদ্দিন মোল্যার সঙ্গে ওই পার্ক সংলগ্ন এক খন্ড জমি নিয়ে বিরোধ ও মামলা মকদ্দমা চলে আসছিল।

এরই মধ্যে মিজানুর বিশ্বাস ওই পার্কের পাশে তার নিজস্ব জমিতে শুক্রবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সেচপাম্প স্থাপনকালে রাত সাড়ে ৯ টার দিকে পার্কের মালিক খরিব উদ্দিনের হুকুমে তার লোকজন রাতের অন্ধকারে অতর্কিতে সেচপাম্প স্থাপনের কাজে নিয়োজিত শ্রমিক ও লোকজনের উপর হামলা চালিয়ে গুলিবর্ষণ শুরু করে আহত করে।

অপরদিকে, খাশিয়াল ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বিশ্বাসসহ ২০জনকে আসামী করে পার্কের সহকারি ম্যানেজার মিজানুর রহমান ঠাকুর অপর মামলাটি দায়ের করেছেন। ওই মামলার বিবরণে জানা গেছে,পার্কের মালিকের সঙ্গে খাশিয়াল গ্রামের মিজানুর বিশ্বাসের জমির বিরোধ চলে আসছে। সেচপাম্প স্থাপনের অজুহাতে ওইদিন রাতের অন্ধকারে স্বশস্ত্র অবস্থায় লোকজন নিয়ে মিজানুর বিশ্বাস বিরোধপূর্ণ জমির কলাগাছ কেটে ফেলাসহ পার্কের সাইনবোর্ড, পোষ্টার ছেঁড়া ও মালামাল ভাঙচুর করে জমিতে দখল নেয়ার চেষ্টা করলে পার্কের নিরাপত্তা রক্ষীরা জানমাল ও পার্কের নিরাপত্তা রক্ষার জন্য লাইসেন্সকৃত বন্দুক দিয়ে গুলি বর্ষণ করেছে।

নড়াইলের নড়াগাতি থানার অফিসার ইনচাজর্ (ওসি) মো. বেলায়েত হোসেন আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়কে বলেন, বলেন,‘ অরুণিমা ইকো পার্কের গুলিবর্ষণের ঘটনায় দু’টি মামলা দায়ের হয়েছে। মামলা দু’টির তদন্ত কাজ শুরু হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

দেখা হয়েছে: 369
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!