fbpx

|

ঝালকাঠি চেম্বার’র নির্বাচন পরিচালনা ও আপিল বোর্ডের বিরুদ্ধে এন্তার অভিযোগ

প্রকাশিতঃ ৯:৪০ অপরাহ্ন | জানুয়ারী ২৩, ২০১৮

খাইরুল ইসলাম, ঝালকাঠি প্রতিনিধি:

আগামী ১০ ফেব্রুয়ারী ‘দ্য ঝালকাঠি চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রিজ’র নির্বাচন ২০১৮-২০১৯ইং কে কেন্দ্র করে গঠিত নির্বাচন পরিচালনা ও আপিল বোর্ডের বিরুদ্ধে উৎকোচ গ্রহন, ক্ষমতার অপব্যবহার ও পক্ষপাতিত্বে অভিযোগ করেছে সালাউদ্দিন আহম্মেদ সালেক ও তার সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীরা।

অর্ডিনারী গ্রুপের প্রার্থী এক প্যানেলের প্রধান সালাউদ্দিন আহম্মেদ সালেক ও লিখিত অভিযোগ প্রদানকারী এক ব্যবসায়ী ২২ জানুয়ারী সোমবার বিকেলে নির্বাচনী কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে গুরুত্বর এ অভিযোগ উত্থাপন করেছে।

অন্যদিকে একই দিন সকাল ১১ টায় ঝালকাঠি চেম্বার অব কমার্স ভবনে নির্বাচন পরিচালনা ও আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যানের কাছে দেয়া সুনির্দিষ্ট অভিযোগের বিষয়ে পক্ষপাতমূলক সিদ্ধান্ত গ্রহনের বিষয়ে তারা লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দি মাহাবুব হোসেন সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থী খোকন লাল ব্রম্মর প্রার্থীতার বৈধতা প্রদানের বিষয়ে আর্থিক লেনদেনের অভিযোগ নিয়ে তীব্র উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, সোমবার সকাল ১১ টায় সালাউদ্দিন আহম্মেদ সালেক সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীরা ও লিখিত অভিযোগ প্রদানকারী ঝালকাঠি চেম্বার অব কমার্স ভবনে উপস্থিত হয়ে নির্বাচন পরিচালনা ও আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যানের কাছে কোন বিধান বলে খোকন লাল ব্রম্মর প্রার্থীতা বৈধ দেয়া হলো জানতে চায়। এর উত্তরে নির্বাচন পরিচালনা ও আপিল বোর্ডের প্রধানদ্বয় তারা কোন অন্যায় করেনি ও তাদের দেয়া অভিযোগের সত্যতা না পাওয়ায় খোকন লাল ব্রম্মর প্রার্থীতা বৈধ ঘোষনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এ সময় লিখিত অভিযোগ প্রদানকারী ও সালেক সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীরা মাহাবুব সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থী জনৈক প্রার্থী খোকন লাল ব্রম্ম যেখানে নির্বাচনের আগে ২৮ ডিসেম্বর ভারত গমন করে ৬ জানুয়ারী পর্যন্ত অবস্থান করলো সেখানে কিভাবে ৬ জানুয়ারী তার স্বাক্ষরিত মনোনয়ন জমা নিয়ে বৈধতা দিলেন এবং এ ভাবে মনোনয়ন পত্র জমা নেয়া ও প্রার্থীতার বৈধতা দেয়ার বিষয়ে কোন নীতিমালা আছে কিনা জানতে চাইলে আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক নীতিমালায় এই বিষয়ে কোন সুনির্দিষ্ট ব্যাখ্যা নেই বলে স্বীকার করেন।

তা হলে নীতিমালায় এই বিষয়ে বৈধ বা অবৈধ ঘোষনার সুষ্পষ্ট কোন বিধিমালা না থাকলে আপনি কিভাবে ঐ প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষনা করলেন এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন এটা তাদের নির্বাচন পরিচালনা ও আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্ত। এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষ মাহাবুব সমর্থিত প্যানেলের এক প্রার্থী সেখানে উপস্থিত হয়ে নির্বাচন পরিচালনা ও আপিল বোর্ডের পক্ষে নিয়ে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পরলে উপস্থিত সালেক সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীরা কঠোর প্রতিবাদ জানায়।

এ সময়ে সেখানে উপস্থিত সালেক সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীরা ও লিখিত অভিযোগ প্রদানকারী তাদের সিদ্ধান্ত, অভিযোগের কপিসহ অভিযুক্ত ব্যবসায়ীর লিখিত জবাববের কপি ও কিছু কাগজ পত্রের অনুলিপিসহ ছায়াকপি চাইলে নির্বাচন পরিচালনা ও আপিল বোর্ড সদস্যরা অপারগতা প্রকাশ করে কঠোর অবস্থান ও বাগবিতন্ডার লিপ্ত হলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।

অন্যদিকে এহেন দূর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারীতার বিষয়টি ‘দ্যি ঝালকাঠি চেম্বার অব কমার্সে এন্ড ইন্ডাষ্ট্রিজ’ এর সকল সদস্য, প্রশাসনের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা ও ‘ঝালকাঠিবাসীর রক্ষা কবজ’ শিল্পমন্ত্রী আলহাজ্ব আমির হোসেন আমু এমপিসহ মন্ত্রনালয়ের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য সোমবার সন্ধ্যায় সালাউদ্দিন আহম্মেদ সালেক ও তার সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থী-সমর্থকদের পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলনের বিস্তারিত অভিযোগ উত্থাপন করেন।

অভিযোগে উল্লেখ করেন, নির্বাচন পরিচালনা বোর্ডের চেয়ারম্যান, জামায়াত নেতা আলহাজ্ব গোলাম রব্বানী টিপু ও অযোগ্য আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান আঃ রাজ্জাকদ্বয় নির্বাচনি তফসিল ঘোষনার পরে থেকে প্রতিদ্বন্ধি প্যানেলের প্রার্থী মাহাবুব হোসেন সমর্থিত প্যানেলের পক্ষ থেকে ভোটারদের চেম্বারের মনোগ্রাম সম্বলিত মগ বিতরন, পরিচালক প্রার্থী খোকন লাল ২৮ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখ ভারতে গমন করে ১৭ জানুয়ারী ২০১৮ তারিখ দেশে এলেও তার ৬ জানুয়ারী ২০১৮ তারিখ মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ার বিষয়ে অভিযোগ সত্বেও বৈধতা দান, খসরা ভোটার তালিকা যাচাই বাছাইর নামে মাত্র ২ঘন্টা সময় প্রধান, তফসিল ঘোষনাসহ ভোটার তালিকা চুরান্ত করা সত্বেও মাহাবুব সমর্থিত প্যানেলের যোগসাজসে ভোটারদের আইডি কার্ড প্রদানের নামে প্রভাবিত করনসহ বিভিন্ন অভিযোগের সমাধান না করে একটি পক্ষের ইশারায় পরিচালিত হওয়াসহ গুরুতর সব অভিযোগ উত্থাপন করেন। যে কারনে বিতর্কিত জামায়াত নেতাকে নির্বাচন পরিচালনা বোর্ড ও অযোগ্য আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যানের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তাদের অব্যাহতি দাবী জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সালাউদ্দিন আহম্মেদ সালেকের সমর্থিত প্যানেলের অর্ডিনারী গ্রুপের প্রার্থী শাহ্ আলম শাহী।

এসময় প্যানেলের প্রধান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সালাউদ্দিন আহম্মেদ সালেক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলাম তালুকদার, মোঃ কামরুল ইসলাম খলিফা খোকন, কাউন্সিলর হাফিজ আল মাহমুদ ও কামাল শরীফসহ ব্যাবসায়ীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

দেখা হয়েছে: 428
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!