fbpx

|

অবশেষে সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতনের জামিন মঞ্জুর

প্রকাশিতঃ ১০:১০ অপরাহ্ন | ডিসেম্বর ১৮, ২০১৭

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধাঃ

গাইবান্ধার অতিরিক্ত জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক ময়নুল হাসান ইউসুফ আজ ১৮ ডিসেম্বর সোমবার সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতনের জামিন মঞ্জুর করেন। সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতন তিনি দৈনিক মানবজমিন পত্রিকা ও চ্যানেল এস টেলিভিশনের পলাশবাড়ী উপজেলা প্রতিনিধি।

সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতনের আইনজীবি জেলা বার এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড.এহসানুল করিম লাছু বলেন, সিরাজুল ইসলাম রতনের জামিনের জন্য আদালতে আবেদন করা হয়। দীর্ঘ শুনানী শেষে বিচারক জামিনের আবেদন মঞ্জুর করে তাকে জেলা কারাগারে হতে মুক্তির নির্দেশ প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, গত ১৯ জুন উপজেলা পরিষদের উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়ের একটি অনাকাংখিত ঘটনায় সাংবাদিক রতনের বিরুদ্ধে গত ২০ জুন পলাশবাড়ী থানায় সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুর রহমান একটি মামলা করেন। থানার এসআই হামিদুল ইসলাম ওই মামলায় তার বিরুদ্ধে চার্জশিট দিলে আদালত গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করেন। এ মামলায় সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতন গত ১৪ ডিসেম্বর আদালতে আর্তসমর্পন করলে আদালতের বিচারক জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

উল্লেখিত মামলার এঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শী উপজেলায় কর্মরত একাধিক সাংবাদিক নেতা জানান, পলাশবাড়ী উপজেলার বরিশাল উচ্চ বিদ্যালয়ের একটি অনিয়মের অভিযোগ তদন্ত করতে শিক্ষা অফিসার আব্দুর রহমান ওই দিন সরেজমিনে না গিয়ে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী নিজ কার্যালয়ে তদন্ত করছিলেন।

এ সময় সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতন অভিযোগকারীদের পক্ষ নিলে অভিযোগকারীরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে এবং মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে লাঞ্চিত করে এবং উপজেলা পরিষদ চত্বরে হলরুমের ছাদে বিক্ষোভ করতে থাকে এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার তোফাজ্জল হোসেন উক্ত বিষয়ে সঠিকভাবে তদন্তের আশ্বাসে বিক্ষোভকারীদের শান্ত করে । পরে একটি বিশেষ মহলের ইঙ্গিতে এর দায়ভার সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতনের উপর চাপিয়ে দিয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার আব্দুর রহমান বাদি হয়ে এই মামলা দায়ের করেন।

অপরদিকে মামলা দায়েরের পর হতে উক্ত মামলা প্রত্যাহারে দাবীতে গাইবান্ধা জেলা মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে। গত ১৪ ডিসেম্বর সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতনের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের পর জেলা বিএমএসএফ এর আহবায়ক আব্দুল হান্নান আকন্দ, যুগ্ন আহবায়ক খালেদ হোসেন, সদস্য সচিব জাভেদ হোসেন সাংবাদিক রতনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধনের কর্মসূচী ঘোষণা দেওয়া হয়। পরে জেলা প্রশাসন অনুমতি না দেওয়ায় গাইবান্ধা মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম বিএমএসএফ নেতাদের এক জরুরী সভায় মানববন্ধন কর্মসূচী স্থগিত করে অন্যান্য কর্মর্সূচী অব্যহত রাখেন।

আজ ১৮ ডিসেম্বর আদালতে জামিন আবেদন করলে আদালতের বিচারক ময়নুল হাসান ইউসুফ সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম রতনের জামিন মঞ্জুর করেন।

দেখা হয়েছে: 448
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!