fbpx

|

এমপিওভুক্তির দাবিতে আমরণ অনশনের ৫ম দিনে ৮৭ জন অসুস্থ

প্রকাশিতঃ ৫:৫৫ অপরাহ্ন | জানুয়ারী ০৪, ২০১৮

অনলাইন বার্তাঃ

এমপিওভুক্তির দাবিতে পঞ্চম দিনের মতো আমরণ অনশন পালন করেছেন স্বীকৃতিপ্রাপ্ত নন-এমপিও শিক্ষকরা। গতকাল বুধবার পর্যন্ত অনশনে মোট ৮৭ জন শিক্ষক-কর্মচারী অসুস্থ হয়েছেন বলে দাবি করেছে নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন। আজ বৃহস্পতিবার আরও কয়েকজন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির সুনির্দিষ্ট সময় ঘোষণার দাবি করে এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন আন্দোলনকারী শিক্ষকনেতারা। এমপিওভুক্তির ব্যাপারে নিশ্চিত না হয়ে তারা বাড়ি ফিরে যাবেন না বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ড. বিনয়ভূষণ রায়, ঠাকুরগাঁওয়ের শিক্ষক তসলিম উদ্দিন, পিরোজপুরের আবদুুস সালাম, পটুয়াখালীর হেমায়েত উদ্দিন, সাতক্ষীরার আবদুস সালাম, ভোলার ফজলুল হক ফিরোজ, রাজশাহীর শামসুল হক, সাতক্ষীরার জাহাঙ্গীর আলমসহ অন্যরা গতকাল অসুস্থ হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। অনেকে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে এসে পুনরায় অনশনে যোগ দিয়েছেন।

আমরণ অনশন কর্মসূচিতে সমর্থন জানিয়ে গতকাল শিক্ষক-কর্মচারীদের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ। এ ছাড়া বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সুশীলসমাজের নেতা এ আন্দোলনের প্রতি সংহতি জানান।

এমপিওভুক্তির দাবিতে আমরণ অনশনের ৫ম দিনে ৮৭ জন অসুস্থ-Aporadh-Barta

টানা অনশনে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন অনেক শিক্ষক-কর্মচারী

তাদের মধ্যে রয়েছেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জাহাঙ্গীর হোসেন (অব.), বাসদ নেতা রাজেকুজ্জামান রতন, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম রনি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি মো. ইমরান হাবিব প্রমুখ।

ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মাহমুদুন্নবী জানান, জীবন গেলেও দাবি পূরণ ছাড়া এখান থেকে যাবেন না। ন্যায্য দাবিতে খোলা আকাশের নিচে শীতের মধ্যে আমরণ অনশন করে যাচ্ছি। অনেক শিক্ষক-কর্মচারী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তবুও সরকার আমাদের দিকে তাকাচ্ছে না। শিক্ষামন্ত্রী আমাদের এখানে আসায় আমরা তাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছি। কিন্তু তার বক্তব্য সুস্পষ্ট না হওয়ায় অনশনরত শিক্ষকরা তার আশ্বাস প্রত্যাখ্যান করেছেন। আমরা চাই সরকার অতি দ্রুত সুনির্দিষ্ট তারিখ ঘোষণা করবে। অন্যথায় আমরণ অনশন চালিয়ে যাব।

সাধারণ সম্পাদক বিনয়ভূষণ রায় হাসপাতালে যাওয়ার আগে সকালে বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ঘোষণা এলেই কেবল অনশন ভাঙা হবে। শিক্ষকনেতারা বলেন, সুনির্দিষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত অনশন কর্মসূচি চালিয়ে যাবেন। তাদের কোনো ক্ষতিসাধন হলে এর দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে। তারা বলেন, এর আগেও একাধিকবার আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল। নীতিমালার কথা বলে আমাদের রাজপথ ছাড়া করা হয়েছে। এসব নীতিমালায় আমরা বিশ্বাসী নই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে সুস্পষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত বাড়ি না ফেরার ঘোষণা তাদের।

এমপিওভুক্তির দাবিতে ২৬ ডিসেম্বর থেকে টানা পাঁচ দিন অবস্থান কর্মসূচি শেষে রবিবার থেকে আমরণ অনশন পালন করছেন শিক্ষক-কর্মচারীরা।

দেখা হয়েছে: 465
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!