fbpx

|

একমাত্র জাতীয় পার্টি নিরাপত্তা ও শান্তি দিতে পারে: এরশাদ

প্রকাশিতঃ ২:২৮ পূর্বাহ্ন | জানুয়ারী ২৫, ২০১৮

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃ

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সরকারের শাসনামল দেশবাসী দেখেছে। মায়ের কোলের শিশুসন্তান আজ নিরাপদে নেই। আমার শাসনামলে এমন ঘটনা ছিল না। একমাত্র জাতীয় পার্টি নিরাপত্তা ও শান্তি দিতে পারে।

বুধবার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গা আব্দুল হক ডিগ্রি কলেজ মাঠে জাতীয় পার্টি আয়োজিত এক জনসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, দেশের মানুষ এখন ভালো নেই। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে তাদের এখন নাভিশ্বাস অবস্থা। ৬০ টাকা দরে চাল কিনে খেতে হয়। তারা ভালো থাকে কীভাবে? বিশেষ করে উত্তরাঞ্চরের মানুষের এখন অনেক কষ্ট।
আমি দেশের মধ্যে ৬৪টি জেলা এবং ৪৬০টি উপজেলা করেছি। প্রতিটি উপজেলায় সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান করে দিয়েছি। আমার শাসনামল ছিল উন্নয়নের সময়কাল।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের জন্য সুন্দরগঞ্জ আসনের এ উপনির্বাচন একটি চ্যালেঞ্জ। যদি এই উপনির্বাচনটি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন হয় তাহলে নির্বাচন কমিশন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারবেন। জনগণের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হবেন।

জনগণের উদ্দেশে এরশাদ বলেন, আমি রংপুরের সন্তান হিসেবে আমাকে আমার সন্তান ফিরিয়ে দিন আপনারা। রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন গোটা দেশের মধ্যে একটি রোল মডেল। রংপুরের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে সুন্দরগঞ্জের নির্বাচন করতে হবে।

তিনি বলেন, সুন্দরগঞ্জে তার প্রার্থী ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারীকে এমপি বানাতে হবে। কারণ সুন্দরগঞ্জের আসনটি ছিল জাতীয় পার্টির। শুধু লাঙলে ভোট দিলে হবে না। ভোট দেয়ার পর কেন্দ্রে কেন্দ্রে অতন্দ্র প্রহরীর মতো দাঁড়িয়ে থেকে বিজয়কে রক্ষা করতে হবে। এ সময় তিনি ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারীর হাত উঁচু করে প্রার্থী হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেন।

এরশাদ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, গত নির্বাচনের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে আসন্ন উপনির্বাচনে কাজ করবেন। সুন্দরগঞ্জ আসনটি লাঙলের ঘাঁটি ছিল আবারও লাঙলের ঘাঁটিতে পরিণত করতে হবে। এর আগে সকাল সাড়ে ১১টায় বামনডাঙ্গা আব্দুল হক মহাবিদ্যালয় মাঠে এসে পৌঁছলে এরশাদকে সুন্দরগঞ্জের ইউএনও এসএম গোলাম কিবরিয়া, ওসি আতিয়ার রহমান ও জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা তাকেসহ তার সফর সঙ্গীদের অভ্যর্থনা জানান। পরে একটি চৌকস প্যারেড দল এরশাদকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন।

উপজেলা জাপার সভাপতি ও চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আইন ও বিচারবিষয়ক উপদেষ্টা ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে এ বিশাল জনসভায় অন্যদের বক্তব্য দেন জাপার কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, বন ও পরিবেশমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, তাজুল ইসলাম চৌধুরী, কাজী ফিরোজ রশিদ, মেজর (অব.) খালেদ আক্তার, আবদুর রশিদ সরকার, রংপুরের নবনির্বাচিত মেয়র ও ভাইস প্রেসিডেন্ট মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, গাইবান্ধা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম ইয়াসীর, উপজেলা জাতীয় পার্টির সিনিয়র সহসভাপতি মাওলানা আবুল হোসেন, সহসভাপতি আনছার আলী সরদার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান মণ্ডল, পৌর জাপার সভাপতি আবদুর রশিদ সরকার ডাবলু, সাধারণ সম্পাদক আবদুল আউয়াল প্রমুখ

বামনডাঙ্গা আব্দুল হক মাঠে জনসভা ছাড়াও জাপা চেয়ারম্যান এরশাদ শোভাগঞ্জ বাজারসংলগ্ন ফুটবল খেলার মাঠ এবং চণ্ডিপুর ডাকবাংলো মাঠে পৃথক দুটি জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

দেখা হয়েছে: 359
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!