fbpx

|

তানোরে দীর্ঘদিন পর বিএনপিতে ঐক্য তৃণমূলে উচ্ছ্বাস

প্রকাশিতঃ ১:৪৯ পূর্বাহ্ন | ডিসেম্বর ২৩, ২০১৭

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি:
রাজশাহীর তানোরে বিএনপিতে দীর্ঘদিন পরে বিএনপির ঐক্যর প্রশ্নে বরফ গলছে। অবশেষে বিএনপির বিবাদমান দুটি পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যেই অবসান হতে চলেছে মান-অভিমান ও ক্ষোভ অসন্তোষের। সম্প্রতি রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বড় ব্যবধানে পরাজয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা ফের আশাবাদি হয়ে উঠেছে।

 

জানা গেছে, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও (সাবেক) ডাকমন্ত্রী ব্যারিস্টার আমিনুল হকের নির্দেশে তানোর উপজেলা বিএনপির (সাবেক) সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এমরান আলী মোল্লা এবং (সাবেক) সাধারণ সম্পাদক ও চাঁন্দুড়িয়া ইউপির (সাবেক) চেয়ারম্যান মফিজ উদ্দীনের নেকৃত্বে বিএনপির নেতা ও কর্মী-সমর্থকগণ ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজনীতির মাঠে আবারো তাদের দলীয় কর্মকান্ড জোরদার করেছে। দীর্ঘদিন পরে এই দুই নেতা একই মঞ্চে ও ঐক্যবদ্ধ হওয়ায় বিএনপির রাজনীতিতে সৃষ্টি হয়েছে নিরব গণজোয়ার তৃণমূলে ফিরে এসেছে প্রাণচাঞ্চল্য ও উচ্ছ্বাস।

 

তানোর উপজেলা বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে এখন বইছে ঐক্যর হাওয়া। তানোর বিএনপিতে ঐক্যের প্রশ্নে বিএনপির বিবাদমান দুটি পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে দীর্ঘদিনের বিরাজমান মান-অভিমান আর ক্ষোভ-অসন্তোসের বরফ গলতে শুরু করেছে। দীর্ঘদিনের বিবাদমান দুটি ধারার নেতাকর্মীরাই এখন ঐক্যের অপরিহার্যতা অনুধাবন করে পরস্পরকে কাছে টানতে শুরু করেছে। বিবাদমান দু’পক্ষেরই নেতাকর্মীদের দাবী অতীতের বিভেদ ভুলে দলকে ঐক্য ও ভ্রাতৃত্বের সুদৃঢ় ভিত্তির ওপর দাঁড় করাতে হবে।

 

বিএনপি ঐক্যবদ্ধ হওয়ায় এই অঞ্চলে বিএনপি’র রাজনীতিতে নাটকীয় পরিবর্তন এসেছে। যে কারনে দীর্ঘদিন পর তানোর বিএনপি’র রাজনীতিতে ফিরে এসেছে প্রাণ চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে গণজোয়ার। তানোরের বিভিন্ন এলাকায় ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিষ্টার আমিনুল হক, তানোর উপজেলা বিএনপির (সাবেক) সভাপতি ও চেয়ারম্যান এমরান আলী মোল্লা, উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোজাম্মেল হক খাঁন, সাধারণ সম্পাদক ও তানোর পৌর মেয়র মিজানুর রহমান মিজান এবং (সাবেক) সম্পাদক মফিজ উদ্দীন ও উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি আব্দুল মালেক মন্ডল প্রমূখরা স্থানীয় বিএনপির বিভিন্ন স্থরের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ, গণসংযোগ, বর্ধিতসভা ও কর্মীসভা করে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ফলে দীর্ঘদিন পর এলাকায় বিএনপির নেতাকর্মী ও সমর্থকগন আবারও চাঙ্গা হয়েছে উঠেছে ফিরে এসেছে প্রাণচাঞ্চল্য।

 

এদিকে এসব কারণে বিএনপির রাজনীতিতে ফিরে এসেছে নাটকীয় পরিবর্তন বিএনপির দলীয় শক্তি ও সমর্থন প্রতিনিয়ত বাড়ছে বলে স্থানীয় বিএনপির দায়িত্বশীল একাধিক সূত্র এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছে। অন্যদিকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি তাদের দলীয় কর্মকান্ড জোরদার করেছেন।

 

অন্যদিকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগে ঠিক বিপরীত অবস্থা বিরাজ করছে, ক্ষমতার ভাগাভাগি, আধিপত্য বিস্তার, প্রবীণ,ত্যাগী ও দিবেদিতপ্রাণ সেতাকর্মীদের ওপর হাইব্রিড অনুপ্রবেশকারী ও বির্তকিতদের হস্তক্ষেপ ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আওয়ামী লীগে মতবিরোধ প্রকাশ্যে রুপ নিয়েছে।বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

 

খোজ নিয়ে জানা গেছে, ব্যারিস্টার আমিনুল হক বিএনপির নির্বাহী কমিটির ভাইস-চেয়ারম্যান হওয়ার পরে ব্যারিস্টার আমিনুল হকের নেতৃত্বে তানোরে দীর্ঘদিন পর বিএনপি তাদের দলীয় কর্মকান্ড জোরদার করেছেন। ফলে এতদিন যে সকল নেতাকর্মী ও সমর্থকগণ ব্যবসা-বাণিজ্যসহ বিভিন্ন কারণে নিজেদের রাজনীতি থেকে দুরে সরিয়ে রেখেছিলেন তাঁরা আবার রাজনীতিতে সক্রীয় হয়ে আবারও নবউদ্দ্যোমে দলের সকল কর্মকান্ডে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ শুরু করেছেন। দেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট পরিবর্তন ,জাতীয় সংসদ উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের পর তানোরে বিএনপির তেমন কোনো সক্রিয় কর্মকান্ড সক্রিয় ছিল না। কিন্তু বিএনপির প্রবীণ ও বর্ষিয়ান রাজনৈতিক নেতা ব্যারিষ্টার আমিনুল হক ভাইস চেয়ারম্যান হয়ে এলাকায় আসার পর সেই চিত্র রাতারাতি পাল্টে গেছে।

 

দীর্ঘদিন পর আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে তানোরে বিএনপি পুনরায় সংগঠিত হচ্ছে। তানোরে বিএনপির নেতাকর্মী ও সমর্থকরা অতীতের সকল ভেদাভেদ ভুলে সংগঠিত হওয়ায় বিএনপির অবস্থান এলাকায় ক্রমেই সু-সংহত হচ্ছে, ব্যারিস্টার আমিনুল হকের পক্ষে সৃষ্টি হয়েছে সাধারণের মধ্যে নিরব গণজোয়ার।

 

তানোর উপজেলা চেয়ারম্যান ও বিএনপির (সাবেক) সভাপতি এমরান আলী মোল্লা বলেন, বিএনপির প্রবীণ ও পরীক্ষিত নেতা ব্যারিস্টার আমিনুল হক এলাকায় আসার পরে বিএনপির রাজনীতিতে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরেছে। তিনি বলেন, যে কোন সময়ের থেকে তানোর বিএনপি এখন বেশি সংগঠিত ও শক্তিশালী।

 

এব্যাপারে তানোর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও তানোর পৌর মেয়র মিজানুর রহমান মিজান বলেন, ব্যারিষ্টার আমিনুল হক এলাকায় আসাতে বিএনপির রাজনীতিতে ইতিবাচক পরিবর্তন হয়েছে, এই পরিবর্তন দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার। তিনি আরও বলেন, বিএনপি দেশের বৃহত্তম একটি রাজনৈতিক দল নেতাকর্মীদের মধ্যে নেতৃত্বের প্রতিযোগীতা রয়েছে তাই বলে এটাকে দলীয়কোন্দ্বল বলা যাবে না বিএনপিতে কোন দলীয়কোন্দ্বল নেই বিএনপির সকল নেতাকর্মী আমরা সকলেই একসঙ্গে রয়েছি।

দেখা হয়েছে: 466
সর্বাধিক পঠিত
ফেইসবুকে আমরা

অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।

প্রকাশকঃ মোঃ জাহিদ হাসান
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী
নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া
মোবাইলঃ ০১৯৭১-৭৬৪৪৯৭
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
error: Content is protected !!